Dhaka ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




গাইবান্ধায় সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি জিপিএ ৫ কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা

সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি ও জিপিএ ৫ প্রাপ্ত কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা সোমবার বিকেলে গাইবান্ধা সরকারী কলেজের দর্শন বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

সু-প্যালেসের আয়োজনে সৃজনশীল গাইবান্ধা ও বই ঘর পাঠাগারের সহযোগিতায় এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গাইবান্ধা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর খলিলুর রহমান।

সু-প্যালেসের স্বত্ত্বাধিকারী সোহাগ মৃধার সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন গাইবান্ধা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুর রশিদ, সহযোগী অধ্যাপক আনিছা আখতার বেগম চৌধুরী, সহযোগী অধ্যাপক এবিএম জিল্লুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক অধ্যাপক জহুরুল কাইয়ুম, গাইবান্ধা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.মকছুদার রহমান শাহান, প্রথম আলো গাইবান্ধা প্রতিনিধি শাহাবুল শাহীন তোতা, ডেইলি স্টার বগুড়া ও গাইবান্ধা প্রতিনিধি মোস্তফা সবুজ, তাওহীদ উন সরকার তুষার, কৃতি শিক্ষার্থী রাফিউল ইসলাম, হোসনে জাহান মিম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সৃজনশীল গাইবান্ধা ও বই ঘর পাঠাগারের প্রতিষ্ঠতা সভাপতি মোঃ মেহেদী হাসান।

বক্তারা কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা আগামীতে আরও ভালো ফলাফল অর্জন করো। তোমরা মনে রেখো অর্থের জন্য কখনও লেখাপড়া পিছিয়ে থাকে না। তোমাদের যদি ভালো ফলাফল করার চেষ্টা থাকে তাহলে এই সমাজের কেউ না কেউ তোমাদের পাশে দাঁড়াবে। তাই তোমরা উচ্চ শিক্ষিত হয়ে দেশ ও জাতির মঙ্গলে কাজ করবে এই প্রত্যাশা করি।

সু-প্যালেসের স্বত্বাধিকার সোহাগ মৃধা বলেন, সু-প্যালেস পরিবার সব সময়ে চেষ্টা করেন সমাজের অসহায়, প্রান্তিক ও অবহেলিত মানুষের পাশে থাকার। তারই ধারাবাহিকতায় প্রথম বারের মতো এসএসসি ২০২৪ পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি ও বিভিন্ন উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। আমরা চাই এই জেলায় গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীরা যাতে অভাবের কারণে শিক্ষা থেকে ঝড়ে না পড়ে। তারা যেনো তাদের নিদিষ্ট লক্ষ্যে পৌছাতে পারে। ভবিষ্যতেও আমাদের এই শিক্ষা বৃত্তি কার্যক্রম চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য, জেলার অচ্ছল মেধাবী, প্রান্তিক, সুবিধাবঞ্চিত, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি আয়োজন করা হয়। ২০২৪ প্রদানের লক্ষ্যে জেলার ৭টি উপজেলার শহর ও গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের বাড়ি পরিদর্শনের মাধ্যমে ৫০ জন শিক্ষার্থীকে চুড়ান্তভাবে বাছাই করা হয়। বাছাইকৃত ৫০ জন শিক্ষার্থীদের সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি হিসেবে নগদ টাকা, ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।




সুন্দরগঞ্জে দাঁড়িয়ে থাকা বাসে আরেক বাসের ধাক্কা, আহত ৭

x

গাইবান্ধায় সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি জিপিএ ৫ কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা

প্রকাশ: ১১:৫৫:৫১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি ও জিপিএ ৫ প্রাপ্ত কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা সোমবার বিকেলে গাইবান্ধা সরকারী কলেজের দর্শন বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

সু-প্যালেসের আয়োজনে সৃজনশীল গাইবান্ধা ও বই ঘর পাঠাগারের সহযোগিতায় এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গাইবান্ধা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর খলিলুর রহমান।

সু-প্যালেসের স্বত্ত্বাধিকারী সোহাগ মৃধার সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন গাইবান্ধা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুর রশিদ, সহযোগী অধ্যাপক আনিছা আখতার বেগম চৌধুরী, সহযোগী অধ্যাপক এবিএম জিল্লুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক অধ্যাপক জহুরুল কাইয়ুম, গাইবান্ধা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.মকছুদার রহমান শাহান, প্রথম আলো গাইবান্ধা প্রতিনিধি শাহাবুল শাহীন তোতা, ডেইলি স্টার বগুড়া ও গাইবান্ধা প্রতিনিধি মোস্তফা সবুজ, তাওহীদ উন সরকার তুষার, কৃতি শিক্ষার্থী রাফিউল ইসলাম, হোসনে জাহান মিম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সৃজনশীল গাইবান্ধা ও বই ঘর পাঠাগারের প্রতিষ্ঠতা সভাপতি মোঃ মেহেদী হাসান।

বক্তারা কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা আগামীতে আরও ভালো ফলাফল অর্জন করো। তোমরা মনে রেখো অর্থের জন্য কখনও লেখাপড়া পিছিয়ে থাকে না। তোমাদের যদি ভালো ফলাফল করার চেষ্টা থাকে তাহলে এই সমাজের কেউ না কেউ তোমাদের পাশে দাঁড়াবে। তাই তোমরা উচ্চ শিক্ষিত হয়ে দেশ ও জাতির মঙ্গলে কাজ করবে এই প্রত্যাশা করি।

সু-প্যালেসের স্বত্বাধিকার সোহাগ মৃধা বলেন, সু-প্যালেস পরিবার সব সময়ে চেষ্টা করেন সমাজের অসহায়, প্রান্তিক ও অবহেলিত মানুষের পাশে থাকার। তারই ধারাবাহিকতায় প্রথম বারের মতো এসএসসি ২০২৪ পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি ও বিভিন্ন উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। আমরা চাই এই জেলায় গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীরা যাতে অভাবের কারণে শিক্ষা থেকে ঝড়ে না পড়ে। তারা যেনো তাদের নিদিষ্ট লক্ষ্যে পৌছাতে পারে। ভবিষ্যতেও আমাদের এই শিক্ষা বৃত্তি কার্যক্রম চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য, জেলার অচ্ছল মেধাবী, প্রান্তিক, সুবিধাবঞ্চিত, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি আয়োজন করা হয়। ২০২৪ প্রদানের লক্ষ্যে জেলার ৭টি উপজেলার শহর ও গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের বাড়ি পরিদর্শনের মাধ্যমে ৫০ জন শিক্ষার্থীকে চুড়ান্তভাবে বাছাই করা হয়। বাছাইকৃত ৫০ জন শিক্ষার্থীদের সু-প্যালেস এসএসসি শিক্ষা বৃত্তি হিসেবে নগদ টাকা, ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।