Dhaka ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




শীতবস্ত্র নিয়ে অসহায় মালেকা বেওয়ার পাশে সাঘাটার ইউএনও

সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় ভরতখালী ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে মালেকা বেওয়া নামে এক বৃদ্ধা অসহায় নারীকে পরিদর্শন করেন সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইসাহাক আলী। সরেজমিনে পরিদর্শন কালে তিনি মালেকা বেওয়ার বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে শীতনিবারণ কম্বল প্রদান করেন।

মালেকা বেওয়া সহায় সম্বলহীনভাবে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের উল্যাবাজারের বিভিন্ন স্থানে রাত্রি যাপন করতেন। বিষয়টি অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন মন্ডল ফারুক আর্মির দৃষ্টিগোচর হলে, প্রাথমিকভাবে মালেকা বেওয়াকে ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দার এক কোণে রাত্রি যাপন করার ব্যবস্থা করেন এবং চিকিৎসার সাথে খাবার ও পানি সরবরাহ করেন। কিন্তু এতেও মালেকা বেওয়ার এই তীব্র শীতে ভোগান্তির শেষ হয় নি।
পরবর্তীতে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দৃষ্টিগোচর করালে তিনি মালেকা বেওয়াকে উপস্থিত কম্বল সহায়তা প্রদান করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুঠোফোনে জানান, মালেকা বেওয়াকে পরবর্তীতে উপযুক্ত স্থান পেলে বাসস্থলের ব্যবস্থা প্রদান করা হবে।

মালেকা বেওয়ার বিষয়ে ভরতখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ইউএনও সাহেবের সহোযোগিতায় আমারো সর্বোচ্চ সহযোগিতা থাকবে।

মালেকা বেওয়ার প্রতি সদয়ভাবে এগিয়ে আসার বিষয়ে স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের প্রশংসা করেন।

উক্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন, ভরতখালী ইউপি’র উত্তর উল্যার সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান।

ট্যাগ :




সুন্দরগঞ্জে দাঁড়িয়ে থাকা বাসে আরেক বাসের ধাক্কা, আহত ৭

x

শীতবস্ত্র নিয়ে অসহায় মালেকা বেওয়ার পাশে সাঘাটার ইউএনও

প্রকাশ: ০৮:৩০:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৪

সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় ভরতখালী ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে মালেকা বেওয়া নামে এক বৃদ্ধা অসহায় নারীকে পরিদর্শন করেন সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইসাহাক আলী। সরেজমিনে পরিদর্শন কালে তিনি মালেকা বেওয়ার বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে শীতনিবারণ কম্বল প্রদান করেন।

মালেকা বেওয়া সহায় সম্বলহীনভাবে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের উল্যাবাজারের বিভিন্ন স্থানে রাত্রি যাপন করতেন। বিষয়টি অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন মন্ডল ফারুক আর্মির দৃষ্টিগোচর হলে, প্রাথমিকভাবে মালেকা বেওয়াকে ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দার এক কোণে রাত্রি যাপন করার ব্যবস্থা করেন এবং চিকিৎসার সাথে খাবার ও পানি সরবরাহ করেন। কিন্তু এতেও মালেকা বেওয়ার এই তীব্র শীতে ভোগান্তির শেষ হয় নি।
পরবর্তীতে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দৃষ্টিগোচর করালে তিনি মালেকা বেওয়াকে উপস্থিত কম্বল সহায়তা প্রদান করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুঠোফোনে জানান, মালেকা বেওয়াকে পরবর্তীতে উপযুক্ত স্থান পেলে বাসস্থলের ব্যবস্থা প্রদান করা হবে।

মালেকা বেওয়ার বিষয়ে ভরতখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ইউএনও সাহেবের সহোযোগিতায় আমারো সর্বোচ্চ সহযোগিতা থাকবে।

মালেকা বেওয়ার প্রতি সদয়ভাবে এগিয়ে আসার বিষয়ে স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের প্রশংসা করেন।

উক্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন, ভরতখালী ইউপি’র উত্তর উল্যার সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান।