Dhaka ০৯:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




রাজিবপুরে ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার

কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে ইজিবাইক ছিনিয়ে নিয়ে এনামুল হক (৫০) নামের এক চালক হত্যার ঘটনায় আবু হানিফ (৬৮) ও ফারুক শেখ (৫৫) নামের দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনার ১৬ দিন পর বুধবার নরসিংদী ও টঙ্গী স্টেশন রোড থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার বিষ্ণুপুর স্বর্ণকারপাড়া এলাকার মৃত শুক্কুর মুন্সির ছেলে আবু হানিফ ও রাজবাড়ী জেলা সদরের গঙ্গাপ্রাসাদপুর এলাকার মৃত রিয়াজ শেখের ছেলে ফারুক শেখ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজিবপুর থানার ওসি মোঃ আশিকুর রহমান এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জানান, ইজিবাইক ছিনিয়ে নিয়ে চালক এনামুল হক হত্যাকরে ঘটনায় রৌমারী ও রাজিবপুর সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টের সিসিটিভি ফুটেজ নিবিড় পর্যালোচনা করা হয়। ইজিবাইকে (অটো গাড়ি) থাকা দুই অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির ছবি সংগ্রহ করা হয়। এরপর তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে সনাক্তকরণসহ অবস্থান নিরুপণ করে জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, গাজীপুর, নরসিংদী ও রাজবাড়ী জেলায় অভিযান চালায় রাজিবপুর থানা পুলিশ। মরদেহ উদ্ধারের ১৬ দিন পর বুধবার নরসিংদী থেকে আবু হনিফ ও টঙ্গী স্টেশন রোড থেকে ফারুক শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে ছিনতাই হওয়া ইজিবাইক (অটো গাড়ি) দেওয়ানগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় ছিনতাই চুরিসহ চেতনাশক বিষ প্রয়োগের অসংখ্য মামলা রয়েছে। এছাড়া আন্তজেলা ইজিবাইক (অটো) ছিনতাই চক্রের সক্রিয় সদস্য তারা।

গ্রেফতারের পরই নিহতের পরিবার ছুটে আসেন রাজিবপুর থানায় ।নিহতের স্ত্রী মামলার বাদী আয়েশা সিদ্দিকা জানায়,আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। আসামিদের আমি ফাঁসি চাই।  আমার স্বামী মরে যাওয়ার পরে আমার পরিবার অন্ধকারে দিনভাত করছে। আমার স্বামী একমাত্র উপার্জন করত। এখন আমি  কি করে সংসার চালাবো আমার ছেলে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে।  কিভাবে পরিবার চালাই আমি কিছুই বুঝতেছি না

ট্যাগ :




বামনডাঙ্গায় বুড়িমারী এক্সপ্রেস ট্রেনটি যাত্রা বিরতির দাবিতে মানববন্ধন

x

রাজিবপুরে ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ০৮:০২:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে ইজিবাইক ছিনিয়ে নিয়ে এনামুল হক (৫০) নামের এক চালক হত্যার ঘটনায় আবু হানিফ (৬৮) ও ফারুক শেখ (৫৫) নামের দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনার ১৬ দিন পর বুধবার নরসিংদী ও টঙ্গী স্টেশন রোড থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার বিষ্ণুপুর স্বর্ণকারপাড়া এলাকার মৃত শুক্কুর মুন্সির ছেলে আবু হানিফ ও রাজবাড়ী জেলা সদরের গঙ্গাপ্রাসাদপুর এলাকার মৃত রিয়াজ শেখের ছেলে ফারুক শেখ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজিবপুর থানার ওসি মোঃ আশিকুর রহমান এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জানান, ইজিবাইক ছিনিয়ে নিয়ে চালক এনামুল হক হত্যাকরে ঘটনায় রৌমারী ও রাজিবপুর সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টের সিসিটিভি ফুটেজ নিবিড় পর্যালোচনা করা হয়। ইজিবাইকে (অটো গাড়ি) থাকা দুই অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির ছবি সংগ্রহ করা হয়। এরপর তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে সনাক্তকরণসহ অবস্থান নিরুপণ করে জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, গাজীপুর, নরসিংদী ও রাজবাড়ী জেলায় অভিযান চালায় রাজিবপুর থানা পুলিশ। মরদেহ উদ্ধারের ১৬ দিন পর বুধবার নরসিংদী থেকে আবু হনিফ ও টঙ্গী স্টেশন রোড থেকে ফারুক শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে ছিনতাই হওয়া ইজিবাইক (অটো গাড়ি) দেওয়ানগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় ছিনতাই চুরিসহ চেতনাশক বিষ প্রয়োগের অসংখ্য মামলা রয়েছে। এছাড়া আন্তজেলা ইজিবাইক (অটো) ছিনতাই চক্রের সক্রিয় সদস্য তারা।

গ্রেফতারের পরই নিহতের পরিবার ছুটে আসেন রাজিবপুর থানায় ।নিহতের স্ত্রী মামলার বাদী আয়েশা সিদ্দিকা জানায়,আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। আসামিদের আমি ফাঁসি চাই।  আমার স্বামী মরে যাওয়ার পরে আমার পরিবার অন্ধকারে দিনভাত করছে। আমার স্বামী একমাত্র উপার্জন করত। এখন আমি  কি করে সংসার চালাবো আমার ছেলে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে।  কিভাবে পরিবার চালাই আমি কিছুই বুঝতেছি না